State Times Bangladesh

মাঠেই রকিবুলকে মারতে গেলেন সুজন

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭:১১, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আপডেট: ১৯:৩৪, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১

মাঠেই রকিবুলকে মারতে গেলেন সুজন

খালেদ মাহমুদ সুজন তেড়ে যাচ্ছেন তারই অগ্রজ আরেক সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসানের দিকে

কক্সবাজারের শেখ কামাল স্টেডিয়ামে পর্দা নেমেছে ছয় দল নিয়ে আয়োজিত লিজেন্ডস চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির। সবশেষ তিনটি দিন যে স্থানটি মুখরিত হয়ে উঠেছিল দেশের সাবেক তারকা ও ঘরোয়া ক্রিকেটারদের কলরবে।

নতুন আঙ্গিকের ১০ ওভার ও ১০ বলের এই আসরের শিরোপা জিতেছে খালেদ মাসুদ পাইলটের একমি স্ট্রাইকার্স। শনিবার ফাইনালে তারা হারিয়েছে খালেদ মাহমুদ সুজনের এক্সপো রেইডার্স।

মিলনমেলার যে ক্রিকেট লিগে আনন্দটাই মুখ্য, সেখানেই কিনা ছড়াল অনাকাঙ্ক্ষিত উত্তাপ! অপ্রত্যাশিত এক ঘটনায় চুনকালি পড়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটে। ক্রিকেট মাঠেই দেখা গেল, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন তেড়ে যাচ্ছেন তারই অগ্রজ আরেক সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসানের দিকে।

প্রভাবশালী এই বোর্ড পরিচালক বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন রকিবুলের সঙ্গে। অনেকে এগিয়ে এসে সুজনকে আটকানোর চেষ্টা করেন। তাকে আটকাতে বেশ বেগই পেতে হয়েছে। তার মধ্যেই এই বোর্ড পরিচালক রাগ আটকাতে না পেরে উপড়ে ফেলেন মাঠের পাশে থাকা স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের ছাউনি।

কী এমন ঘটল যে বয়সে সিনিয়র রকিবুল হাসানের দিকে এমন আগ্রাসীভাবে তেড়ে গেলেন ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ? এই বিষয়ে ম্যাচ রেফারি রকিবুল হাসানকে জিজ্ঞেস করা হলে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘অন্য জায়গায় খেলা নিয়ে ইয়ে হয়েছে। যেহেতু আমি টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান। আইনের মধ্যে যা আছে তা-ই। কিন্তু হ্যাঁ, আমার হতাশা লেগেছে (সুজন মারমুখী হওয়ায়), আমি হতাশ। কিন্তু এ নিয়ে আমি কথা বলব না। এটা কবর হয়ে গেছে। আমার এটা নিয়ে কিছু বলার নেই।’

রকিবুল যেমন ঘটনাটি এড়িয়ে যেতে চাইলেন, ঠিক তেমনি সুজনও এটি এড়িয়ে গেলেন। প্রকাশ্যে কক্সবাজারের মাঠে ম্যাচ রেফারি রাকিবুল হাসানকে মারতে উদ্যত হওয়ার প্রসঙ্গটা তুলতেই তিনি জানান, এ নিয়ে কিছুই বলবেন না। ঢাকার ফ্লাইট ধরার প্রসঙ্গ টেনে শুধু বললেন, ‘এই প্রসঙ্গে নো কমেন্টস।’

গুঞ্জন আছে সাকিব আল হাসানের জাতীয় দল ছেড়ে আইপিএল খেলার সিদ্ধান্ত ছাড়াও বেশ কিছু ইস্যু জড়িত আছে এমন কাণ্ডের পেছনে। এছাড়া শনিবার সকালে খাবার টেবিলে বসে ১৯৯৯ সালের বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে এক বিতর্ক ছড়ানো মন্তব্য করেন রকিবুল। সেটি কানে যেতেই এমন মারমুখী হয়ে উঠেন সুজন।