State Times Bangladesh

পরিকল্পিতভাবে কানাডায় মুসলিম পরিবারের ৪ সদস্যকে গাড়ি চাপায় হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৫৬, ৮ জুন ২০২১

আপডেট: ১৬:৩৬, ৮ জুন ২০২১

পরিকল্পিতভাবে কানাডায় মুসলিম পরিবারের ৪ সদস্যকে গাড়ি চাপায় হত্যা

ছবি : সংগৃহীত

কানাডায় গাড়ি চাপা দিয়ে একটি মুসলিম পরিবারের চার সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে। স্থানীয় সময় রোববার সন্ধ্যায় অন্টারিও প্রদেশের লন্ডন শহরে এ ঘটনা ঘটে। এটি পূর্ব-পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে জানিয়েছে দেশটির পুলিশ।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, রাস্তা পার হওয়ার জন্য ওই মুসলিম পরিবারের পাঁচ সদস্য সড়কের পাশে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় তাদেরকে গাড়ি চাপা দেওয়া হয়। এ ঘটনায় মুসলিম পরিবারের চারজন সদস্য নিহত হন। তাদের মধ্যে দুজন নারী। একজনের বয়স ৭৪ বছর, অপরজনের ৪৪। এ ছাড়া ৪৬ বছর বয়সী এক ব্যক্তি ও ১৫ বছরের এক কিশোরী মারা গেছেন।

পরিবারটির বেঁচে যাওয়া একমাত্র ছেলের বয়স ৯ বছর। সে গুরুতর আহত। এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।   

এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে দেশটির ২০ বছর বয়সী এক নাগরিককে অভিযুক্ত করা করেছে। তার বিরুদ্ধে চারজনকে হত্যা ও একজনকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনেছে পুলিশ।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে গোয়েন্দা পুলিশের সুপারিনটেনডেন্ট পল রাইট বলেন, মুসলিম হওয়ার কারণেই ওই পরিবারকে হত্যার টার্গেট করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। পুলিশ সম্ভাব্য এ সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ খতিয়ে দেখছে।

এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে এক টুইটে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, অন্টারিও প্রদেশের লন্ডনের খবর শুনে আমি মর্মাহত। ঘৃণিত এ ঘটনায় যারা প্রিয়জনদের হারিয়েছেন, আমরা তাদের পাশে আছি। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিশুটির পাশেও আছি আমরা।

প্রসঙ্গত, কানাডায় ২০১৭ সালে কুইবেক সিটির একটি মসজিদে ছয় মুসলিমকে হত্যা করা হয়েছিল। এরপর রোববার সবচেয়ে বড় হামলার ঘটনা ঘটে।

 

Muslim family of four killed in `premeditated` Canada truck terror attack #Islamophobia pic.twitter.com/eFTpnbp17y

— Murtaza Ali Shah (@MurtazaViews) June 7, 2021

সম্পর্কিত বিষয়: