State Times Bangladesh

মিয়ানমারের সামরিক জান্তার পেজ বন্ধ করলো ফেসবুক

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৭:২৭, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আপডেট: ১৭:২৮, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১

মিয়ানমারের সামরিক জান্তার পেজ বন্ধ করলো ফেসবুক

মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লেইং

সহিংসতায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর ফেসবুক পেজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। রোববার জান্তা পরিচালিত ‘ট্রু নিউজ’ নামের এই পেজটি বন্ধ করার কথা জানায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। সামরিক বাহিনী দিনের পর দিন বিক্ষুব্ধ জনতার ওপর দমন পীড়ন বাড়িয়ে চলেছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনাবাহিনী অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের পর থেকে দেশটির সকল স্তরের পেশাজীবীরা কাজে ইস্তফা দিয়ে অং সান সু চির মুক্তি ও ক্ষমতা হস্তান্তরের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। সেনা সরকার এই আন্দোলন সহিংসভাবে দমনের চেষ্টা করছে। বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে এখন পর্যন্ত ৩ জনকে হত্যা করেছে পুলিশ।

সামরিক বাহিনী বলেছে, তারা আইনিভাবেই ক্ষমতার পালাবদল ঘটিয়েছে। তারা ফেসবুকে তাদের পাতায় প্রচার করছে, গত নভেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচন নিয়মতান্ত্রিকভাবে হয়নি। তাতে প্রচুর অবৈধ ও জাল ভোট পড়েছে।

 ফেসবুকের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, ট্রু নিউজ ইনফরমেশন টিম নামের ওই পেজে বারবার সহিংসতা ও মিথ্যা প্রচারণা চালানো হচ্ছে। তাই পেজটি কর্তৃপক্ষ বন্ধ করে দিয়েছে। এছাড়াও দেশটির সামরিক বাহিনীর কয়েক শত সদস্যদের সঙ্গে সম্পর্কিত পাতা সরিয়ে ফেলেছে। এসব পেজে দেশটির রোহিঙ্গা জনগণের বিরুদ্ধে নানা ধরনের কুৎসা ও অপপ্রচার চালানো হতো। রাখাইন প্রদেশে সন্ত্রাস দমনের নামে পরিচালিত সশস্ত্র অভিযানে হাজার রোহিঙ্গা নিহত হয়। ধর্ষিত হয় অসংখ্য নারী। সাড়ে ৭ লাখ রোহিঙ্গা ভিটেমাটি ছেড়ে প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে পাশের দেশ বাংলাদেশে পালিয়ে গেছে।

জাতিসংঘের তদন্তে মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লেইংসহ অন্যান্য সেনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে গণহত্যা চালানোর অভিযোগ ওঠে। এরপর সেনাপ্রধানসহ অন্যান্য সামরিক কর্মকর্তাদের অ্যাকাউন্ট ফেসবুক বাতিল করে দেয়।

মিয়ানমারের সীমান্তে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করা সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এবং মুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংসতা প্ররোচিত করার অভিযোগে কট্টরপন্থী বৌদ্ধ ভিক্ষুদের গ্রুপকেও নিষিদ্ধ করেছে ফেসবুক।